শুরুর আগেই শেষ

রোবট খুব দুষ্ট ছেলে,,,খুব পাজিও বলা যায়,,,খুব fun করে সবার সাথে,,,ও হা,,,আপনারা কি ভাবছেন,,,রোবট একটা নাম হল নাকি,,,হুম,ঠিকই ভাবছেন,,,আসলে এটা ওর ছদ্ম নাম,,,রোবট সবার সাথে খুব friendly ব্যবহার করে,,,আপনারা তো জানেনই,,,প্রত্যেক ক্রিয়ার একটি সমান ও বিপরিত প্রতিক্রিয়া থাকে,,,তেমন ওর ভালো দিকের সাথে খারাপ দিকও আছে,,,ও মেয়েদের সাথে timepass করতে like করে,এমন কি করেও,,,নিজের হাত কাটে শুধু শুধু,,,নিজেকে কষ্ট দেয় বিভিন্ন ভাবে,,,etc,,,etc,,,ও নিজেকে পরিবর্তন করার চেষ্টা করেছে অনেক কিন্তু পারে নি,,,কেন যানি রোবট ভাবলো কোনো এক alien এসে ওকে change করতে পারবে,,,কিন্তু সে alien কে ও কোথায় পাবে তা জানে না,,,অজানা পথে দীর্ঘ সময় তার জন্য অপেক্ষা করছে কিন্তু পাচ্ছে না,,,এমন কি তাকে পাওয়ার কোনো পথও জানা নেই,,,
.
কিছু দিন পর রোবট ফেসবুকে এক মেয়েকে ফ্রেন্ড রিকুয়েস্ট পাঠায়,,,আইডির নাম ছিল strange angel,,,একসেপ্ট ও হয় তবে একটু দেরিতে,,,যাই হোক,রোবট ওর সাথে friendly chat করে,,,এভাবে অনেকদিন যাওয়ার পর রোবট বুঝতে পারে ও যাকে খুজছিল সে হচ্ছে এই মেয়েটা,,,কারন ওর সাথে কথা বলার পর থেকেই রোবট নিজেকে অনেক বদলে ফেলেছে,,,ও এখন কারো সাথে misbehave করে না,,,নিয়মিত নামায পরে,,,এমন কি এখন নিজেকে আঘাত ও করে না,,,যা একসময় ওর hobby type ছিল বলা যায়,,,
.
strange angel আর রোবট প্রায় দুই বছর ফেসবুকে যোগাযোগ রাখে,,,রোবট তার alien কে না দেখেই ভালোবেসে ফেলেছিল,,,এবং ধিরে ধিরে এ ভালোবাসা বেড়েই যায়,,,
.
রোবট তার alien কে কখনো বলতে পারে না যে ও ওকে ভালোবাসে,,,মাঝে মাঝে বোঝাতে চায় কিন্তু কোনো response পায় না,,,কারন ওর alien হচ্ছে বাবা মায়ের একমাত্র মেয়ে,,,খুব আদরের,,,তাই ও কখনো বাবা মা কে কষ্ট দেয় না,,,that’s why রোবট successful হতে পারে না,,,আবার এই দিকে রোবট ওর সাথে কথা বলতে না পারলে কান্না করে,,,খাওয়া দাওয়া ছেড়ে দেয়,,,রোবট সারা দিন ফেসবুকে active থাকে,,,কারন ওর alien খুব কম সময়ঈ active হয়,,,আর যে টুকু হয় সে টুকু রোবট হাতছাড়া করতে চায় না,,,এই ভাবে যখন রোবট আর নিজের মনকে control করতে না পারে তখন তার alien কে propose করে,,,কিন্তু ওই পাশ থেকে কোনো উত্তর আস না,,,কিছু দিন পর উত্তর আসে কিন্তু negetive,,,রোবট অনেক চেষ্টা করে ওকে রাজি করাতে কিন্তু পারে না,,,বার বার ওর alien ওকে বোঝায়,
দেখ আমরা শুধু frnd,,,এর বাহিরে আমাদের মাঝে আর কিছু নেই,,,রোবট বার বার একই ans পেয়ে খুব hurt হয় কিন্তু বোঝাতে পারে না alien কে,,,ধিরে ধিরে রোবট কষ্ট ভোলার জন্য অন্য উপায় অবলম্বন করা শুরু করে,,,খারাপ উপায়,,,নেশা করা শুরু করে,,,এমন কি ধিরে ধিরে একদম নেশাগ্রস্ত হয়ে যায়,,,আগে যে রোবট all time active থাকত তা ওর alien জানত,,,কারন ওর আরেকটা account ছিল,,,fake account,,,ওইটা দিয়েও রোবট এর সাথে friend ছিল,,,কিন্তু রোবট জানত না,,,এখন ও all time active থাকে কিন্তু রোবট কে active পায় না,,,কারন রোবট এমন পর্যায়ে চলে গিয়েছিল যেখানে কেউ সুস্থ থাকতে পারে না,,,একসময় রোবট কে hospital এ নিতে হয়,,,কিন্তু সেখানে ওর অবস্থা আরও খারাপ হয়ে যায়,,,ওর শরীরে কোনো ঔষধই কাজ করে না,,,ওর alien এসব জানত না,,,যখন দেখেযে রোবট একদমই active থাকে না তখন ওর চিন্তা হয়,,,কি হল,,,তাই ও খোজ নেয়া শুরু করে,,,এবং রোবটের অবস্থা সম্পর্কে অবগত হয়,,,দেখতে যায় রোবট কে,,,কিন্তু রোবট তখন live support এ ছিল,,,রোবট এর সাথে কাউকে দেখা করতে দেয়া হত না,,,কিন্তু খুব কষ্ট করে ও ভেতর যায়,,,কিছুক্ষণ কাদে,,,তারপর কানে কানে কিছু বলে যায়,,,
এতটা ভালবাস আমাকে,,,পারলে ক্ষমা করে দিও,,,আমি বুঝতে পারি নি,,,
.
রোবট এর alien ও কিছুটা অস্বাভাবিক সিদ্ধান্ত নেয়, শেষ বার মনে মনে বলে,,,সবসময় তো তুমিই আগে অপেক্ষা করতে আমার জন্য এবার না হয় আমি করি,,,
.
একটা কাহিনী শুরু হওয়ার আগেই এইভাবে শেষ হয়ে যায়,,,

Advertisements

Leave a Reply

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / Change )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / Change )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / Change )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / Change )

Connecting to %s